Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় গৃহবধুর রহস্য জনক মৃত্যু

পূর্বধলায় লাকি আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যুহয়েছে। নিহত লাকি আক্তার পূর্বধলা উপজেলার হোগলা ইউনিয়নের চলিত ডহর গ্রামের সুমন মিয়ার কন্যা।
শনিবার (২৫ জুলাই) সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ দিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত গৃহবধুর স্বামী রাকিব মীর কে আটক করেছে পুলিশ। নিহতের বাবা সুমন মিয়া জানান মাত্র নয় মাস আগে ছেলে, মেয়ের পছন্দ অনুয়ায়ী তাদের বিয়ে হয় একই গ্রামের মোশরফ মীরের ছেলে রাকিব মীরের সাথে।
নিহতের বাবা সুমন মিয়া সাংবাদিকদের জানান তার মেয়ে গত রাতে মোবাইল ফোনে তাদের সাথে কথা বলেছেন সব ঠিক আছে। হঠাৎ কেন কি কারনে আমার মেয়ে আত্নহত্যা করেছে তা বুঝতে পারছি না। তবে প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করে অপরাধীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেন তিনি।
পূর্বধলা থানার উপ-পরিদর্শক কবির হোসেন জানান নিহতের বাবা মা”র অভিযোগ বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে প্রায়শই ঝগড়া হতো । কবির হোসেন আরো জানান গতকাল রাতে বাপের বাড়ী যাওয়া নিয়ে তাদের দু’জনের মধ্যে কথা কাটা কাটি হয়।
পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ তাওহীদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন নিহতের স্বামী রাকিব মীরকে জিজ্ঞাসা বাদের জন্য আটক করা হয়েছে, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রির্পোট হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারন জানা যাবে।

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *