Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় জমিজমা সংক্রান্ত পারিবারিক কলহে মেডিকেল ছাত্রীর উপর হামলা

নেত্রকোণার পূর্বধলায় জমিজমা সংক্রান্ত পারিবারিক কলহের জের ধরে সাদিয়া শারমিন (২০) নামের এক মেডিকেল ছাত্রীর উপর হামলার অভিযোগ উঠছে বিবাদী আপন চাচা আব্দুল আজিজ খান, চাচাত ভাই জুয়েল খান, সুহেল খান ও খান মোহাম্মদের উপর। সাদিয়া উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের লাউয়ারী গ্রামের মোঃ কামাল খানের মেয়ে এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী।

অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সাদিয়ার বাবা ও চাচা মিলে ২০১৫ সালে নেত্রকোণার ত্রিমোহনী বাজারে একটি অটো রাইস মিল ক্রয় করেন। রাইস মিলের জায়গা-জমি নিয়ে পূর্ব শত্রুতা ও পারিবারিক কলহের জের ধরে গত ১৪ এপ্রিল রাতে সাদিয়াসহ তার পরিবারের উপর হামলা করেন বিবাদীরা। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত ১৬ এপ্রিল কামাল হোসেন বাদী হয়ে ৪৪৭/৩২৩/৩২৫/৩২৬/৩০৭/৫০৬/১১৪ ধারায় পূর্বধলা থানায় একটি মামলা (মামলা নং ১৯) দায়ের করেন।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ শিবিরুল ইসলাম জানান,অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেন এবং অভিযোগের ভিত্তিতে পূর্বধলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।সেই সাথে আসামীদের আটক করার অভিযান অব্যাহত আছে।

আহত সাদিয়ার ভাই রাতুন খান লিমন জানান, আমার চাচা ও চাচাত ভাইয়েরা মিলে আমাদের উপর হামলা করেছেন। লক ডাউনে আমার বোন বাড়িতে আসলে তাকে মাথায় আঘাত করে জখম করেছে। মামলা তুলে নিতে নানা ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে বিবাদীদের সাথে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।

More from আইন আদালতMore posts in আইন আদালত »
More from গণমাধ্যমMore posts in গণমাধ্যম »
More from জাতীয়More posts in জাতীয় »
More from নারী ও শিশুMore posts in নারী ও শিশু »
More from প্রশাসনMore posts in প্রশাসন »
More from বিশেষ সংবাদMore posts in বিশেষ সংবাদ »
More from শিক্ষাMore posts in শিক্ষা »
More from সকল সংবাদMore posts in সকল সংবাদ »
More from সারা বাংলাMore posts in সারা বাংলা »
More from সারাদেশMore posts in সারাদেশ »
More from স্বাস্থ্যMore posts in স্বাস্থ্য »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Mission News Theme by Compete Themes.