Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুতের গড় বিলের নামে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ

নেত্রকোণার পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি গড় বিলের নামে গ্রহকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। করোনার প্রভাবে অর্থনৈতিক মন্দায় গ্রহকরা অতিরিক্ত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। গ্রাহক সূত্রে জানাযায়, গত এপ্রিল মাসে পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি কোনো মিটার রিডিং না দেখে মনগড়া গড় বিল করে। যা অন্যান্য মাসের তুলনায় দুই তিন গুণ বেশি। আবাসিক সংযোগে শুণ্য থেক ৭৫ ইউনিট বিদ্যুতের মূল্য ৪ টাকা ১৯ পয়সা, ৭৬ থেকে ২০০ ইউনিট পর্যন্ত বিদ্যুতের মূল্য ৫ টাকা ৭২ পয়সা। ইউনিট বাড়িয়ে গড় বিল করার কারণে গ্রাহককে ইউনিট প্রতি ১ টাকা ৫৩ পয়সা অতিরিক্ত গুণতে হচ্ছে। সরকার করোনার কারণে গ্রহকদের জরিমানা মওকুফ সহ বিল পরিশোধে বিশেষ সুবিধা প্রদান করেছেন। কিন্তু পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি গড় বিলের নামে অতিরিক্ত বিলের বোঝা চাপিয়ে দিয়েছে। বিষয়টি সরকারের সিদ্ধান্তের পরিপন্থী বলে মনে করছেন গ্রহকরা। পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুত সমিতির আওতায় ৬৫ হাজার গ্রাহক রয়েছে। গড় বিলের কারণে গ্রাহকদের প্রায় কোটি টাকা অতিরিক্ত গুণতে হবে।

এ বিয়য়ে পূর্বধলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী লিপিয়া খাতুন জানান উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে গড় বিল প্রদান করা হয়েছে। বিলে কোনো অসঙ্গতি থাকলে পরবর্তি বিলে তা সংশোধন করা হবে। এ বিষয়ে বিলের কাগজে সীলযুক্ত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বাড়তি রিডিংয়ের কারণে গ্রহকদের অতিরিক্ত গুণার বিষয়টি তিনি বার বার এড়িয়ে যান।

More from বিচিত্র-সংবাদMore posts in বিচিত্র-সংবাদ »

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *