Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় এসি ক্লাবের ২৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গুণীজন সংবর্ধনা

নেত্রকোনা পূর্বধলায় ১৯৯১ সালের ১৬ মার্চ যাত্রা শুরু করে ক্রীড়া সংগঠন এসি ক্লাব। এই সংগঠন ক্রীড়া, সামাজিক, মাদক মুক্ত সমাজ বির্নিমানের প্রত্যয় নিয়ে একদল ক্রীড়ামোদী সৃস্টি করে আমতলা ক্রীকেট ক্লাব(এসি ক্লাব)। ক্রীড়া, সামাজিক, মাদক মুক্ত সমাজ পরিচর্যার প্রত্যয় নিয়ে সংগঠনটির যাত্রা শুরু। সম্প্রীতির রূপরেখা বিনির্মাণের প্রত্যয়ে গড়ে ওঠা সংগঠনটি সময়ের স্রোতোধারায় পূর্ণ করেছে প্রতিষ্ঠার ২৯ বছর। সাফল্যের সেই উদ্‌যাপনে সোমবার সংগঠনের পক্ষ থেকে কেক কাটা ও গুণীজন সংবর্ধনা  অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনার সঙ্গে  অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা দেওয়া হয় নৃ-তত্ত্ব ও স্থানীয় ইতিহাস গবেষণা কর্মে বিশেষ অবদান রাখায় আলী আহাম্মদ খান আইয়োব-কে ।

আলী আহাম্মদ খান আইয়োবের জন্ম ৭ মার্চ ১৯৬০ খ্রিষ্টাব্দে (২৪ ফালগুন ১৩৬৬ বঙ্গাব্দ) নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলাধীন খলিশাপুর গ্রামে। পিতা- মরহুম কদর উদ্দিন খান, মাতা- মরিয়মের নেছা। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে কাজ করেছেন দু’যুগ। প্রখ্যাত সাহিত্যিক খালেকদাদ চৌধুরী সম্পাদিত ‘উত্তর আকাশ’ সাময়িকপত্রের দ্বিতীয় পর্বে আলী আহাম্মদ খান আইয়োব সম্পাদক ছিলেন।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় পূর্বধলা রেলওয়ে স্টেশান প্লাটফর্মে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কোরআন তেলোয়াতের মাধ্যমে শুরু হয় অনুস্টানটি। কেবিএম নোমান শাহরিয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন আলী আহাম্মদ খান আইয়োব, মিডিয়া আইডিয়াল স্কুলের পরিচালক জুলফিকার আলী শাহীন, ক্লাব উপদেস্টা শামীমুল ইসলাম শামীম, কেবিএম মামুন শাহরিয়ার, ইস্তিয়াকুর রহমান বাবু, পূর্বধলা উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইস্তিয়াক আহমেদ বাবু, পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জায়েজুল ইসলাম, পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, পূর্বধলা সরকারী কলেজ এর প্রভাষক মোহাম্মদ আলী জুয়েল, এসি ক্লাবের সাবেক সভাপতি আনিসুর রহমান রুবেল, কেবিএম সুমন শাহরিয়ায়, রক্তমিতা ফোরামের সভাপতি ও সাংবাদিক সাদ্দাম হোসেন, জার্নাল ৭১ এর সাংবাদিক শফিকুজ্জামান, রক্তমিতা ফোরামের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাজাহান মিয়াসহ পূর্বধলার বিভিন্ন ক্লাব সংগঠনের সভাপতি/সম্পাদক,সদস্য ও এলাকার সম্মানিত ব্যক্তিবর্গ। ক্লাব সাধারণ সম্পাদক রাফে ইবনুল সাবিদ অনিকের সঞ্চালনায় অনুস্টানটি পরিচালিত হয়। আলোচনায় বক্তব্য রাখেন অতিথিরা এরপর সম্মাননা প্রাপ্ত ব্যক্তির হাতে স্মারক তুলে দেওয়া হয়, পরে ২৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। কেক কাটা শেষে নৈশভোজে অংশগ্রহণ করেন অতিথিসহ সকলে।

More from বিনোদনMore posts in বিনোদন »

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *