Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় শিশু, যুবক ও বৃদ্ধের অপমৃত্যু

নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলায় ফাঁসিতে ঝুলে যুবকের আত্মহত্যা, মাইক্রোবাসের নিচে চাপা পড়ে শিশু ও ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যুসহ ৩টি অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।


আজ সোমবার সকালে উপজেলার খলিশাউড় ইউনিয়নের রাজিবপুর গ্রামের সানি (২৫) ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছে। তার বাবার নাম হেলাল উদ্দিন। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল ৭টার দিকে সানি নিজ বসত ঘরের আড়ায় গামছা পেচিয়ে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করে। তার আত্মীয়-স্বজন ও স্থানীয়রা জানায় সানি দীর্ঘদিন যাবৎ মানসিক রোগে ভুগছিল।


সকাল ১১টার দিকে ময়মনসিংহ-নেত্রকোণা হইওয়ে সড়কে উপজেলার নানান্দিয়া বাজার এলাকায় মাইক্রোবাসের নিচে চাপা পড়ে চৈতি (০৮) আহত হয়। আহত চৈতিকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। চৈতি নারান্দিয়া ইউনিয়নের খাগরিয়া গ্রামের রমেশ রবিদাসের মেয়ে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকাল ১১টার দিকে চৈতি রাস্তা পাড় হওয়ার সময় ময়মনসিংহ থেকে নেত্রকোণাগামী একটি মাইক্রোবাস তাকে ধাক্কা দেয়। আহত চৈতিকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয়।


অপরদিকে রবিবার রাতে জারিয়া-ময়মনসিংহ রেলপথের পূর্বধলা বাজার এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মফিজ উদ্দিন (৭৫) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। মফিজ উদ্দিন উপজেলা সদর ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের মৃত জামাল উদ্দিনের ছেলে।
পূর্বধলা রেল স্টেশনের কর্তব্যরত বুকিং সহকারি মো. আব্দুল মোমেন জানান, মফিজ উদ্দিন তার বাড়ির রেললাইনের পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ময়মনসিংহ থেকে জারিয়াগামী ২৭৬ নং লোকাল ডাউন ট্রেনের ধাক্কায় তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে পূর্বধলা উপজেলা হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর র্কতব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *