Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত

নেত্রকোনা পূর্বধলায় ঐতিহাসিক ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালন করেছে পূর্বধলা উপজেলা বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। গতকাল শনিবার বিকেলে পূর্বধলা রেলওয়ে স্টেশান বাজারে দিবসটি পালন করা হয়।

১৯৭৫ সালের এ দিনে ক্যান্টনমেন্টের বন্দীদশা থেকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে মুক্ত করে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেয় সিপাহী-জনতা।

এ সময় অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি এস এম শহীদুল্লাহ ইমরান। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসের আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন হাজী আহম্মদ আলী সরকার, হাজী আব্দুল গনি , আব্দুল মান্নান , গোলজার আহম্মেদ , আজিম উদ্দিন তালুকদার আরশাদ, ইদ্রিছ মেম্বার, ডাঃ লতিফ , সাজ্জাদ হোসেন সাচ্চা, নাজমুল হুদা ফিরোজ চেয়ারম্যান , ফিরোজ তালুকদার , আসাদুজ্জান ডানো , মতিউর রহমান, উজ্জ্বল মিয়া, আনিসুজ্জামান আনিছ , নাজমুল হাসান আকাশ, নয়ন মিয়া প্রমুখ।

এ সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি এস এম শহীদুল্লাহ ইমরান বলেন, ‘আজকের এই দিনে স্বজাতির স্বাধীনতা রক্ষায় অকুতোভয় দেশপ্রেমিক সৈনিক ও জনতার ঢলে ঢাকার রাজপথে এক অনন্য বিস্ফোরণ ঘটে। ক্যান্টনমেন্ট থেকে জিয়াউর রহমানকে মুক্ত করা হয়। পাল্টে যায় দেশের পটভূমি এবং এ পরিবর্তনে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব প্রভাবমুক্ত হয়ে শক্তিশালী এক জাতীসত্ত্বা লাভ করে বাংলাদেশ। গণতন্ত্র অর্গলমুক্ত হয়ে অগ্রগতির পথে দেশ এগিয়ে যায়। এ ছাড়া এদিন থেকে প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ বহুদলীয় গণতন্ত্রের পথে যাত্রা শুরু করে। জিয়াউর রহমান শাহাদাত বরণ করলেও তাঁর আদর্শে বলীয়ান মানুষ দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষায় এখনো দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ রয়েছে।’

More from রাজনীতিMore posts in রাজনীতি »

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *