Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলা পৌরসভা পুণর্বহালের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

“যে যেখানে আছি ভাই, পূর্বধলা পৌরসভা চাই” এই শ্লোগানকে সামনে নেত্রকোনার পূর্বধলায় নাগরিক কমিটির আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার পূ্র্বধলা প্রেসক্লাব, পূর্বধলা হেল্পলাইন এবং আজকের আরবান এর অংশগ্রহণে আজ বুধবার (৫ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১ ঘটিকায় পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। পূ্র্বধলা উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নাগরিক কমিটির আহ্বায়ক, আজকের আরবান এর প্রকাশক ও সম্পাদক এবং পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ আরিফুজ্জামান মাসুম।

পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জায়েজুল ইসলামের উপস্থাপনায় উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থেকে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন পূর্বধলা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার ও নাগরিক কমিটির উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আইয়ুব আলী। মানববন্ধনে পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের দাবিতে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন, পূ্র্বধলা সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক হাবিবুর রহমান, পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি জুলফিকার আলী শাহীন, পূর্বধলা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান মিন্টু, পূ্র্বধলা উপজেলা

জাতীয় পার্টির সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার আজাদ, পূর্বধলা জগৎমনি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নূর আহাম্মদ খান রতন, পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, সম্পাদক পরিষদের সভাপতি সাংবাদিক মোঃ এমদাদুল ইসলাম, নূরুল ইসলাম, শিমুল সাখাওয়াত, প্রভাষক আবু হানিফ তালুকদার রাসেল, পূ্র্বধলা হেল্পলাইন এর ক্রিয়েটর এডমিন কেবিএম নোমান শাহরিয়ার, শ্রমিক নেতা হীরা মিয়া, প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি জাকির আহমেদ খান কামাল, দেওটুকোন আব্দুল গনি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিউটন চন্দ্র সরকার, পূ্র্বধলা হেল্পলাইন এর এডমিন প্রভাষক মোহাম্মদ আলী জুয়েল, পূ্র্বধলা উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব সাজু আহমেদ, কবি খোরশেদ আলী তালুকদার, পূর্বধলা যুব উন্নয়ন সংঘের সভাপতি জুনায়েতুজ্জামান জেনন প্রমূখ। এসময় বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের বিষয়টি এখন সময়ের দাবি। পূর্বধলা এক সময় পৌরসভা গঠিত হয়েছিল এবং পৌর প্রশাসক নিয়োগের মাধ্যমে এর কার্যক্রম চলমান ছিল। পরবর্তীতে পূ্র্বধলা পৌরসভাকে বাতিল করা হয়। জনস্বার্থে পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের দাবিতে প্রয়োজনীয় সকল সহযোগিতা কামনা করেন। পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের জন্য পৌরসভা বাস্তবায়নে নাগরিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। আন্দোলন ও পাশাপাশি লেখালেখির মাধ্যমে পৌরসভার সকল নাগরিকের আওয়াজ তুলতে হবে। পূর্বধলা পৌরসভা বাতিলের বিষয়টি ছিল একটি কালো অধ্যায়। পূর্বধলা পৌরসভা পুনর্বহালের দাবিতে লেখনীর মাধ্যমে জোর দাবি তোলার আবেদন জানান।

এসময় আলোচকগণ উপজেলার সকল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি অরাজনৈতিক প্লাটফর্ম গঠনের প্রতি জোর দেন। আলোচনায় বক্তারা মানববন্ধন, ব্যানার, স্মারকলিপি, ফেষ্টুন স্থাপনের মাধ্যমে দাবি প্রতিষ্ঠার আওয়াজ তোলার প্রতি জোর দাবি জানান।

পরে নাগরিক কমিটির সভাপতি সৈয়দ আরিফুজ্জামান মাসুম স্বাক্ষরিত একটি স্বারকলিপি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জাহিদ হাসান প্রিন্স এর মাধ্যমে স্থানীয় সংসদ সদস্য, মহিলা সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব, ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার, নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক ও পূর্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর প্রদান করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালে নেত্রকোনার পূর্বধলাকে পৌরসভায় উন্নীত করা হয়। পরবর্তীতে পৌর প্রশাসক নিয়োগের মাধ্যমে। দীর্ঘদিন এর কার্যক্রম চলমান থাকে। পরবর্তীতে গত ২০১০ সালের ১৮ জুলাই রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্থানীয় সরকার,পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় স্থানীয় সরকার বিভাগ পৌর-২ শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব মোঃ খলিলুর রহমান স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপন জারির মাধ্যমে বাতিল ঘোষণা করা হয়। সীমানা পূনর্গঠনের দাবি তুলে পৌরসভা বাতিল করা হলেও এখন পর্যন্ত সীমানা পুননির্ধারণের মাধ্যমে পৌরসভা পুনঃপ্রতিষ্ঠার কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে না।

More from আইন আদালতMore posts in আইন আদালত »
More from গণমাধ্যমMore posts in গণমাধ্যম »
More from জাতীয়More posts in জাতীয় »
More from জীবনধারাMore posts in জীবনধারা »
More from বিশেষ সংবাদMore posts in বিশেষ সংবাদ »
More from রাজনীতিMore posts in রাজনীতি »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Mission News Theme by Compete Themes.