Press "Enter" to skip to content

ভুল নম্বরে আসা ৫০হাজার টাকা ফেরত দিল পূর্বধলার নাহিদ

নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের তারাকান্দা গ্রামের নাহিদুল ইসলাম আলমের সততায় মুগ্ধ এলাকাবাসী। ভুল করে বিকাশে চলে আসা ৫০হাজার টাকা আজ সোমবার টাকার মূল দাবিদার বিল্লাল হোসেনকে ফেরত দিয়েছে সে। নাহিদ ফেসবুক গ্রুপ পূর্বধলা হেল্পলাইনের মডারেটর । তার পিতা মো. আজিজুল হক ভূইয়া।


১৭ মার্চ বুধবার সন্ধ্যার পর নাহিদের ব্যক্তিগত বিকাশ নম্বরে হঠাৎ করে দুই ধাপে ২৫হাজার করে মোট ৫০হাজার টাকা চলে আসে। টাকা পেয়ে অবাক নাহিদ। ঘটনা বুঝতে না পেরে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাটি জানায় পূর্বধলা হেল্পলাইনের মডারেটর আব্দুল্লাহ আল মামুনকে। মামুন ও নাহিদ দ্রুত বিষয়টি জানায় হেল্পলাইনের ক্রিয়েটর এডমিন কেবিএম নোমান শাহরিয়ার ও মোহাম্মদ আলী জুয়েলকে। টাকার মূল মালিকের জন্য অপেক্ষা করেন তারা। একাধিক ব্যক্তি দাবিদার হয় কিনা তা নিশ্চিত করতে। শরিয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার আহাম্মদ মাঝিরকান্দি পাইনপাড়া গ্রামের আ. জব্বার মোস্তাকের ছেলে বিল্লাল হোসেন নামের এক ব্যক্তি ওই টাকা নিজের বলে দাবী করে। সে জানায় একজনকে টাকা পাঠাতে গিয়ে ভুলে নাহিদের বিকাশে টাকা চলে এসেছে। নাহিদ টাকাটি ফেরত দেওয়ার আশ্বাস দেয়।

বিল্লাল হোসেন আজ সোমবার সকালে পূর্বধলায় আসলে নাহিদ তাকে ৫০ হাজার টাকা বুঝিয়ে দেয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ওয়াহিদুজ্জামান তালুকদার আজাদ,মোহাম্মদ আলী জুয়েল, কেবিএম নোমান শাহরিয়ার, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মোস্তাক আহমেদ, শাহজাহান মিয়া প্রমুখ।

উপস্থিত সকলেই নাহিদের সততার প্রশংসা করেন। টাকা ফেরত পেয়ে বিল্লাল হোসেন বলেন, নাহিদের সততায় তিনি মুগ্ধ। আজকাল মুঠোফোনে ভুলক্রমে ১০০ টাকা রিচার্জ হলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রে অনুরোধ করেও সে টাকা ফেরত পাওয়া যায় না। সেখানে নাহিদ ৫০হাজার টাকা ফেরত দিয়ে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *