Press "Enter" to skip to content

পূর্বধলায় মটরসাইকেল চুরি, আতঙ্কে মালিকরা

দর্পন প্রতিনিধি: নেত্রকোণার পূর্বধলায় যেন নিয়মিত মোটরসাইকেল চুরির হিড়িক পড়েছে। দিনে দুপুরে হরহামেশেই চুরি হয়ে যাচ্ছে মোটরসাইকেল। ১০-১৫ মিনিট সময় পেলেই কৌশলে মোটরসাইকেল নিয়ে উধাও হয়ে যায় তারা। মোটরসাইকেল চোরদের একটি শক্তিশালী দল গড়ে উঠেছে। এদের রয়েছে শক্তিশালী নেটওয়ার্ক। জানা যায়, উপজেলার বিভিন্নস্থানে গত কয়েক দিনে অন্তত ৫/৭টি মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটেছে। মোটরসাইকেল চুরির থানায় ভুক্তভোগিরা জিডি বা মামলা করেও কোনো প্রতিকার পাচ্ছে না। এখন পর্যন্ত চুরি যাওয়া কোনো মোটরসাইকেল উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।
তবে পুলিশ বলছে, সাধারণ মানুষের মধ্যে থেকেই মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেট এই কাজগুলো করছে। যার কারণে সহজেই মোটরসাইকেল চোরদের ধরা সম্ভব হচ্ছে না। এ অবস্থায় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করেও চুরি ঠেকানো যাচ্ছে না। এ নিয়ে মোটরসাইকেল মালিকরা আতঙ্কে রয়েছেন।
এদিকে, হয়রানি এড়াতে অধিকাংশ চুরির ঘটনায় থানা পুলিশের কাছে মামলা কিংবা অভিযোগ করেননি মালিকরা। অভিযোগ রয়েছে, জানানোর পরও পুলিশ চুরি হওয়া মোটরসাইকেল উদ্ধার ও চোরদের আটক করতে কার্যকরী পদক্ষেপ নেয় না। ভুক্তভোগী, পুলিশ ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত কয়েকদিনে পালসার, ডিসকভার, বাজাজ ও হিরোসহ বিভিন্ন কোম্পানির ব্যক্তি মালিকানাধীন ৬/৭টি মোটর সাইকেল চুরি হয়েছে।
সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) পূর্বধলা উত্তর রাজপাড়া (মঙ্গলবাড়িয়া) রাজবাড়ী পূজা মন্দিরের সামনে থেকে রাত ১০.১৫ মিনিটে ১টি ডিসকভার ১১০সিসি লাল-কালো রংয়ের মোটরসাইকেল চুরি হয়েছে। মটরসাইকেল মালিক খোকন মিয়া জানান, আমি রাজবাড়ীতে সংকীর্ত্তন উপলক্ষে অস্থায়ীভাবে আমার মোটরসাইকেলটি রেখে একটি দোকানে কিছু জিনিসপত্র কেনাকাটা করে ফিরে এসে মোটরসাইকেলটি উক্ত স্থানে পাইনি। অনেক খোঁজা খুজির পরও কোন সন্ধান পেলাম না। মোটর সাইকেলটির মূল্য ১ লাখ ১৯ হজার ৫শ টাকা। তাই পূর্বধলা থানায় এসে শনিবার (৩০ নভেম্বর) জিডি করি (জিডি নং ১৩৪৪)।
গত ১০ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদরের আমতলা এলাকা থেকে ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ হাসানের এপাচি আরটিআর, ১৬০ সিসি, লাল রং এর একটি মোটরসাইকেলটি কে বা কারা চুরি করে নিয়ে যায়। এর আগেও গ্রামীণ ব্যাংকের সামনে থেকে পরপর দুইটি মোটরসাইকেল চুরি ঘটনা ঘটেছে।
মোটরসাইকেল মালিক মাজহারুল ইসলাম (শাহীন) ও শফিকুল ইসলাম খান জানান, পুলিশের চোখ এড়িয়ে প্রতিরাতে ও দিনে এভাবে একের পর এক মুল্যবান একাধিক মোটরসাইকেল চুরি হওয়ায় পূর্বধলা উপজেলাবাসী আতংকিত হয়ে পড়েছে।
ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, পূর্বধলায় বেশ কিছু মোটরসাইকেল চুরি হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে চুরের চক্র ধরা হয়েছে এবং মোটর সাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। অন্যান্য মোটরসাইকেল চুর ও চক্র ধরার চেষ্ঠা অব্যাহত আছে। তবে সবাইকে সচেতন করার চেষ্ঠা করে যাচ্ছি।

Be Fir to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *