Press "Enter" to skip to content

শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামাতে মানববন্ধন

নেত্রকোণার পূর্বধলা উপজেলার শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়কের একিয়ারকান্দা রেলক্রসিং এলাকায় আজ শনিবার (১৭ জুন) সকালে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

সড়কটিতে মৃত্যু, আহত ও নিয়মিত দুর্ঘটনা বন্ধ এবং একিয়ারকান্দা রেলক্রসিংয়ের উভয়পাশের সড়কটি দ্রুত সংস্কারের দাবিতে স্থানীয় জনগণের উদ্যোগে এ মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে ক্ষেতমজুর সমিতিরি সহ সাধারন সম্পাদক অর্ণব সরকার, পূর্বধলা সরকারি কলেজের প্রভাষক মোহাম্মদ আলী জুয়েল। স্থানীয়দের পক্ষে বক্তব্য রাখেন কাজিম উদ্দিন, নাজিম উদ্দিন, মো ফারুক, সোহেল, হেলাল, আলেক মিয়া, আ. রহমান, আজিজুল হক, হাসিম, কাইয়ুম, কাছম আলী, রুক্কু মিয়া, হারেছ, সিদ্দিক, মাধ্যমিক শ্রেণির শিক্ষার্থী রনি, শফিক, শান্ত, জুয়েল, লিটন, প্রমুখ।


মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী বক্তারা বলেন, শ্যামগঞ্জ-বিরিশিরি সড়ক একটি মৃত্যু ফাঁদ, আর একিয়ারকান্দা রেলক্রসিং এলাকাটি ইতিমধ্যে ভয়ংকর স্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়ে পড়েছে। এ সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন শত শত বালুবাহী ট্রাক চলাচল করে। যার কারনে রেলক্রসিংয়ের উভয় পাশে ইট ও খুয়া উঠে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে যানবাহন উল্টে দুর্ঘটনা ঘটছে। কখনো কখনো ট্রেন থামিয়ে যানবাহন পার করার দৃশ্যও দেখা গেছে। এছাড়া এ সড়কটিতে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল থামছেই না। ১৫ জুন বৃহস্পতিবার রাতে এই সড়কটিতে ট্রাক-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফরিদ-উজ্জামান রিফাতের মৃত্যু সকলকে কাঁদিয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্নজন নিয়মিত লেখালেখি করছেন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষনে। হতাহত বন্ধে স্থানীয় প্রশাসন ও নীতি নির্ধারকের দৃষ্টি আকর্ষন করেন বক্তারা।

এ সময় ট্রাক, সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের সতর্ক ও সচেতন হয়ে যানবাহন চালানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

More from গণমাধ্যমMore posts in গণমাধ্যম »
More from জাতীয়More posts in জাতীয় »
More from বিশেষ সংবাদMore posts in বিশেষ সংবাদ »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Mission News Theme by Compete Themes.